গলনে বা কঠিনীভবনে আয়তনের পরিবর্তন এবং গলনাঙ্কের ওপর চাপের প্রভাব বর্ণনা করো? - অ্যান্সগুরু
9 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে করেছেন

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
সম্পাদিত করেছেন

গলনে বা কঠিনীভবনে আয়তনের পরিবর্তন: সাধারণত দেখা যায় পদার্থ তরল থেকে কঠিন অবস্থায় রূপান্তরিত হলে আয়তন কমে যায়।যেমন প্যারাফিন মোম গলিয়ে একটি টেস্টটিউবে রেখে দিলে কিছুক্ষণ পর জমে যায় এবং এর আয়তন কমে যাওয়ার জন্য এর মাঝে একটি গভীর খাদের সৃষ্টি হয়।কিছু কিছু পদার্থ আবার এ নিয়ম মেনে চলে না।বরফ,ঢালাই লোহা,পিতল,বিসমাথ,অ্যান্টিমনি ইত্যাদি তরল হলে আয়তন কমে যায় এবং তরল থেকে কঠিন অবস্থায় রূপান্তরিত হলে আয়তন বেড়ে যায়।

উদাহরণ: 0°C উষ্ণতায় 100 cc পানি জমে 109 cc বরফে পরিণত হয়।ঢালাই লোহার আয়তন প্রায় শতকরা সাত ভাগ বৃদ্ধি পায়।

কোন পাতলা লোহার পাত্রে ফুটানো পানি রেখে পাত্রের মুখে প্যাঁচওয়ালা ছিপি দিয়ে আটকে পাত্রটিকে লবণ মেশানো বরফের মধ্যে রেখে দিলে কিছু সময় পরে দেখা যাবে যে পাত্রটি ফেটে গেছে।পানি জমে বরফ হওয়ার সময় এর আয়তন বেড়ে যায়।প্রসারিত আয়তন পাত্রের গায়ে যে প্রচণ্ড চাপ দেয় তার ফলে পাত্রটি ফেটে যায়।


আয়তন পরিবর্তনের সুবিধা ও অসুবিধা: অবস্থার পরিবর্তনের জন্য পদার্থের আয়তনের প্রসারণ আমাদের ব্যবহারিক জীবনে সুবিধা ও অসুবিধা দুই-ই বয়ে আনে।

লোহা বা পিতল যখন তরল থেকে কঠিনে পরিণত হয় তখন এদের আয়তন প্রসারণ অনেক কাজের অসুবিধা করে দেয়।ঢালাই করার সময় ধাতু গলিয়ে ছাঁচের মধ্যে ঢেলে দিয়ে ঠান্ডা করা হয়।ঠান্ডা হলে কঠিন অবস্থা প্রাপ্ত হওয়ায় এর আয়তন বেড়ে যায় এবং ছাঁচের প্রত্যেকটা জায়গা ভরাতে চেষ্টা করে,ফলে ঢালাইয়ের ধারগুলো খুব সৃক্ষ্ম এবং অবিকল ঢালাইয়ের মত হয়।

ছাপার হরফ সীসা,অ্যান্টিমনি ও তামা মিশ্রিত একটি সংকর ধাতু।তরল থেকে কঠিন অবস্থায় রূপান্তরের সময় এরও আয়তন বাড়ে।ফলে হরফের ধারগুলো তীক্ষ্ম ও সুস্পষ্ট হয়।

গলনাঙ্কের ওপর চাপের প্রভাব: পদার্থের ওপর চাপের হ্রাস-বৃদ্ধির জন্য গলনাঙ্ক পরিবর্তিত হয়।চাপের জন্য গলনাঙ্ক পরিবর্তন দুইভাবে হতে পারে।

১। কঠিন অবস্থা থেকে তরল অবস্থায় রূপান্তরের সময় যেসব পদার্থের আয়তন বৃদ্ধি পায়,যেমন,মোম,তামা ইত্যাদি; চাপ বাড়ালে ঐ সব পদার্থের গলনাঙ্ক বেড়ে যায় অর্থাৎ,বেশি তাপমাত্রায় গলে।বর্ধিত চাপ পদার্থের আয়তন বৃদ্ধি অসুবিধা করে দেয় ফলে গলনাঙ্ক বেড়ে যায়।

২। আবার যেসব পদার্থের আয়তন গলনের ফলে হ্রাস পায়,যেমন ঢালাই লোহা,বরফ,অ্যান্টিমনি,বিসমাথ ইত্যাদি; এদের ক্ষেত্রে চাপ বাড়লে গলনাঙ্ক কমে যায় অর্থাৎ,এরা কম তাপমাত্রায় গলে।বর্ধিত চাপ পদার্থের আয়তন সংকোচনে সুবিধা করে দেয়।ফলে এদের গলনাঙ্ক কমে যায়।

স্বাভাবিক চাপে বরফের গলনাঙ্ক 0°C । কিন্তু বায়ু শূন্যস্থানে বরফের গলনাঙ্ক 0.0078°C । সুতরাং এক বায়ুমণ্ডলীয় চাপে অর্থাৎ, 76cm পারদ চাপের পরিবর্তনের জন্য বরফের গলনাঙ্ক 0.0078°C পরিবর্তিত হয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
28 নভেম্বর 2021 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Redowan lslam
1 উত্তর
27 নভেম্বর 2021 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Redowan lslam
1 উত্তর
1 উত্তর
1 উত্তর
অ্যান্সগুরু বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি অনলাইন কমিউনিটি। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করতে পারবেন ৷ আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে অবদান রাখতে পারবেন ৷

1,381 টি প্রশ্ন

1,164 টি উত্তর

5 টি মন্তব্য

50,755 জন সদস্য

4 Online Users
1 Member 3 Guest
Online Members
Today Visits : 3955
Yesterday Visits : 9030
Total Visits : 337493
...