ল্যাবরেটরির ব্যবহার বিধি আলোচনা করো? - অ্যান্সগুরু
30 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে করেছেন

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
ল্যাবরেটরির ব্যবহার বিধি : ল্যাবরেটরিতে কাজ শরু করার পূর্বে প্রতিটি শিক্ষার্থীকে প্রথমত মানসিক প্রস্তুতি, দ্বিতীয়ত কলেজ-ড্রেস বা ইউনিফরম, তৃতীয়ত পরীক্ষাকালীন ব্যবহৃত রাসায়নিক পদার্থের ক্ষতিকর সংস্পর্শগণ এবং ভাঙ্গা কাচের পাত্র ইত্যাদি থেকে দেহকে রক্ষা করে।

১) আ্যাপ্রন (apron) : প্রত্যেক শিক্ষার্থা রসায়ন পরীক্ষাগারে ঢোকার আগে সাদা অ্যাপ্রন বা ল্যাব কোট পরে নিতে হবে। এতে প্রথমত শিক্ষার্থীর মানসিক প্রস্তুতি লাভ; দ্বিতীয়ত রাসায়নিক দ্রব্য থেকে কলেজ ড্রেস সুরক্ষা ও তৃতীয়ত রাসায়নিক দ্রব্যের স্পর্শ থেকে শরীরের ত্বক রক্ষা পায়। অ্যাপ্রন বা ল্যাব কোট সাদা সুতি কাপড় দিয়ে তৈরি করা হয়। সুতি কাপড়ের আ্যপ্রন আরামদায়ক হয় । সাদা সুতি কাপড় শরীরের তাপশক্তি বিকিরণে সহয়ক হয়। অ্যাপ্রন বা ল্যাব কোটটি বেশি চিলেচালা হওয়া বাঞ্ছনীয় নয়। ল্যাব কোট হবে হাফ-হাতা, যেন হাতায় কোনো রাসায়নিক পদার্থ সহজে লেগে না যায়; কিংবা ল্যাব কোটের কোনাে অংশ যেন সহজে বুনসেন বার্নারের শিখার সংস্পর্শে না আসতে পারে।

(২) নিরাপদ চশমা : রাসায়নিক পরীক্ষা কাজ করার সময় চোখে নিরাপদ চশমা বা গগলস্ ব্যবহার করতে হবে; এতে ছিটকে পড়া রাসায়নিক পদার্থ, রাসায়নিক পদার্থের ধৌয়া থেকে চোখ রক্ষা পায়। ল্যাবরেটরিতে ব্যবহৃত অনেক রাসায়নিক পদার্থের কোমল চোখের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। অথবা কাজ করার সময় অসতর্ক মূহুর্তে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ ছিটকে চোখে পড়তে পারে। এমন কী যে কোনো সময়ে কোনো দুর্ঘটনায়ও রাসায়নিক ল্যাবে বিষাক্ত ধৌয়ার সৃষ্টি হতে পারে। তাই রাসায়নিক পরীক্ষাগারে এ ধরনের দুর্ঘটনার ক্ষতিকর প্রভাব থেকে নিজেকে রক্ষা করতে

(৩) হ্যান্ড গ্লাভস : রাসায়নিক পদার্থের বোেতল ধরার আগে হাতে হ্যান্ড গ্রাভস পরতে হবে; এতে ক্ষয়কারক রাসায়নিক) পদার্থ যেমন- এসিড, ক্ষার ও বিভিন্ন ক্ষতিকারক রাসায়নিক পদার্থের সংস্পর্শ হাতে ঘটবে না। বাজারে কম দামে পাওয়া যায়। সিনথেটিক জিটেরস, ও ভিনাইল পচনশীল নয় এবং অধিক দাহ্য। তাই পরিবেশবান্ধব পচনযোগ্য নাইটাইল রাবার গ্লাভস ব্যবহার করা উচিত। গাঢ় এসিড ব্যবহারের সময় এসিডের বােতলের গায়ে অসাবধানতাবশত গ্লাভস পরা থাকলে হাতের কোনাে ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না। ল্যাবরেটরিতে ব্যবহৃত ফিল্টার পেপার, কাচের টুকরা, ভাঙ্গা কর্ক ইত্যাদিকে ডাষ্ট-বিনে ফেলার ক্ষেত্রে হাতে হ্যান্ড-গ্লাভস ব্যবহার করা উচিত । এক্ষেত্রে ল্যাবরেটরিতে ব্যবহৃত রাসায়নিক বস্তু ছাড়া সৃষ্ট ক্ষতিকর প্রভাবের মাত্রার ওপর নির্ভর করে বিভিন্ন প্রকার হ্যান্ড-প্লাভস ব্যবহার করতে হয়। এটি তাপ রোধক অ্যাসবেন্টস গ্লাভস এর বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

(ক) ভিনাইল গ্লাভস (Vinyt gloves) : এটি পলিভিনাইল ক্রোরাইড বা PVC নিয়ে তৈরি করা হয়।

(খ) নিওপ্রিন গ্লাভস (Neoprene gloves) : এটি পলিকোরোপ্রিন দিয়ে তৈরি। এটি বেশ নরম। ক্ষয়কারী পদার্থ এবং ত্বকে বিরক্তিকর অনুভূতি সৃষ্টিকারী রাসায়নিক পদার্থের ব্যবহার ফলে ভিনাইল গ্লাভস হাতে পরা হয়।

(৪) মাস্ক : ক্ষতিকারক গ্যাস বা রাসায়নিক পদার্থের বাষ্পের প্রস্তুতি বা ব্যহারের আগে মাস্ক পরতে হয়।

(৫) পায়ে জুতা পরতে হবে।

(৬) লস্বা চুল বেঁধে মাথায় ক্যাপ পরতে হবে। যাতে কোনাে রাসায়নিক দ্রব্য ও ধোয়া ইত্যাদি চোখের পার্শ্ব দিয়ে প্রবেশ করতে না পারে। ল্যাবরেটরিতে নিজের ও সহপাঠীর সুরক্ষা নিশ্চিত করে পরীক্ষা কাজ সুসম্পন্ন করা এবং এর ব্যবস্থা রাখতে হবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
15 ডিসেম্বর 2021 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Redowan lslam
1 উত্তর
1 উত্তর
অ্যান্সগুরু বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি অনলাইন কমিউনিটি। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করতে পারবেন ৷ আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে অবদান রাখতে পারবেন ৷

1,381 টি প্রশ্ন

1,164 টি উত্তর

5 টি মন্তব্য

50,806 জন সদস্য

4 Online Users
3 Member 1 Guest
Today Visits : 4063
Yesterday Visits : 9030
Total Visits : 337601
...