সিরাজের সাথে ইংরেজদের সংঘর্ষের কারণ বর্ণনা কর? - অ্যান্সগুরু
20 বার প্রদর্শিত
"পড়াশোনা" বিভাগে করেছেন

এই প্রশ্নটির উত্তর দিতে দয়া করে প্রবেশ কিংবা নিবন্ধন করুন ।

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
সিংহাসনে আরােহণের পর, দানবিধ কারণে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সাথে সিরাজ-উদ-দৌলার বিরোধ উপস্থিত হয়।
বিরোধের কারণসমূহ ছিল নিম্নরূপ : প্রথমত, সিরাজের সিংহাসনে আরােহণের পর ইংরেজগণ নতুন নবাবের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করে কোনাে প্রকার প্রেরণ না করায় তারা প্রচলিত রীতি-নীতি লঙ্ঘন করে। এ ছাড়া ইংরেজদের উদ্ধুত ব্যবহারে সিরাজ নিজে অপমান বােধ করেন। দ্বিতীয়ত, আলীবদী খাঁ-এর রাজত্বকালে তিনি বিদেশিদের নতুন দুর্গ নির্মাণ করতে নিষেধ করেছিলেন। কিন্তু সিরাজ-উদ-দৌলার রাজত্বকালে দাক্ষিণাত্যে যুদ্ধের অজুহাতে ইংরেজ এবং ফরাসিগণ নবাবের বিনা অনুমতিতে বাংলাদেশে দুর্গ নির্মাণ করলে সিরাজ তাদেরকে দুর্গ নির্মাণ স্থগিত রাখার নির্দেশ প্রদান করেন। ফরাসিগণ নবাবের আদেশ মান্য করলেও ইংরেজগণ এটা অমান্য করে। ফলে সিরাজ ইংরেজদের প্রতি উত্তেজিত হয় পড়েন। তৃতীয়ত, নবাবের খালা ঘসেটি বেগম এবং পু্ণিয়ার শওকত জঙ্গকে ইংরােজগণ তাঁর বিরুদ্ধে সাহায্যদানের প্রতিশ্রতি দিলে তিনি সঙ্গত কারণেই ইংরেজদের প্রতি বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন। চতুর্থত, ইংরেজগণ বাণিজ্য শুক্ল ফাঁকি দিয়ে বাণিজ্যে অবাধে 'দন্তক' ব্যবহার করলে দেশীয় বণিকগণ, ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রন্ত হয়। নবাব ইংরেজ কোম্পানিকে দস্তক-এর অপব্যবহার না করতে এবং মুর্শিদকুলি খা-এর সময়ের বাণিজ্য শর্ত মেনে চলার নির্দেশ প্রদান করলে ইংরেজগণ এট অমান্য করে। ফলে সিরাজ ইংরেজদের প্রতি স্তব্ধ হয়ে ওঠেন।

পঞ্চমত, নবাব কাশিম বাজারের ইংরেজ কুঠি পরিদর্শনের অভিলাষ প্রকাশ করে দূত প্রেরণ করলে ইংরেজগণ নবাবের দূতকে অপমান করেন। এতে নবাব ইংরেজদের প্রতি অতিশয় বিক্ষু্ব্ধ হয়ে পড়েন।

ষষ্ঠত, সিরাজের বিরুদ্ধে কতিপয় উচ্চপদস্থ কর্মচারী ইংরেজদের সাথে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হলে পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করে। এ সময় ঢাকার ঘসেটি বেগমের দেওয়ান রাজবল্লভের পুত্র কৃষ্ণদাস ঢাকায় রাজকোষের প্রচুর ধনসম্পদ নিয়ে কলিকাতায় ইংরেজদের আশ্রয় গ্রহণ করে। নবাব কৃষ্ণদাসকে তার নিকট ফেরত পাঠানাের নির্দেশ প্রদান করলে ইংরেজগণ তা প্রত্যাখ্যান করে। ইংরেজদের এরূপ অশােভন আচরণ এবং বেরী মনােভাব নবাবের ধৈর্যচ্যুতি ঘটে।

নবাবের কলিকাতা আগমন : সিরাজ-উদ-দৌলা ইংরেজদের ধুষ্টতায় অতিষ্ঠ হয়ে পূর্ণিয়ার শওকত জঙ্গের বিরুদ্ধে যুদ্ধযাত্রা স্থগিত করে ৫০ হাজার সৈন্যের এক বিশাল বাহিনীসই কলিকাতা অভিমুখে যাত্রা করেন। পথিমধ্যে তিনি ইংরেজদের কাশিমবাজার কুঠি লুষ্ঠন করে কলিকাতা অবরােধ করেন। ইংরেজ কোম্পানির গভর্নর নবাবের অতর্কিত আক্রমণে ভীত হয়ে 'ফোর্ট উইলিয়াম' পরিত্যাগ করে জলপথে কলিকাতার দক্ষিণে যফলতায় আশ্রয় গ্রহণ কেন। ১৭৫৬ খ্রিস্টাব্দের ২০ জুন 'ফোর্ট উইলিয়াম' নবাবের হন্তগত হয়। কলিকাতা অধিকার করে সিরাজ-উদ-দৌলা নিজের মাতামহের নামানুসারে এর নাম রাখেন আলীনগর।

অন্ধকূপ হত্যা কাহিনী : নবাবের কলিকাতা আভিযানের প্রাকালে ওয়েলসহ কতিপয় ইংরেজ কচারী ফোর্ট উইলিয়ামে বন্দী হয়েছিলেন।নবাব ১৪৬ জন ইংরেজ বন্দীকে ১৮ x ১৪ আয়তনবিশিষ্ট এক ক্ষুদ্র অন্ধকার প্রকোষ্ঠে আবদ্ধ করে রাখেন। জুন মাসের প্রচণ্ড গরমে এ ক্ষুদ্র পরিসরে ১৪৬ জন ইংরেজ বন্দীর মধ্যে ১২৩ জন শ্বাসরুদ্ধ করে মত্যবরণ করেন। হলওয়েল কর্তৃক প্রচারিত নবাবের বিরুদ্ধে ইংরেজদেরকে উত্তেজিত করার জন্য এটা একটি কল্পিত কাহিনীর পশ্চাতে ঐতিহাসিক কোনাে সত্যতা খুঁজে পাওয়া যায়।

আলীনগরের সন্ধি : অন্ধকূপ হত্যা কাহিনী এবং সিরাজ কর্তৃক কলিকাতা অধিকারের সংবাদ মাদ্রাজে পৌঁছালে ইংরেজ সেনাপতি ওয়াটসন এবং রবার্ট ক্লাইভ দ্রুত কলিকাতা পুনরুধারে অগ্রসর হন এবং শীষ্রহ তারা কলকাতা পুনরুদ্ধার করেন। ১৭৫৭ খ্রিষ্টাব্দে নবাব পুনরায় কলিকাতা আক্রমণ করেন। কয়েক দিন যুদ্ধ পরিচালনার পর নবাব চারদিকে ষড়যন্ত্রের বেড়াজাল লক্ষ্য করে ইংরেজদের সাথে এক অপমানজনক সন্ধিতে আবদ্ধ হন। এটাই বিখ্যাত 'আলীনগরের সন্ধি' নামে খ্যাত। এ সন্ধির শর্তানুসারে নবাব দিল্লির সম্রাট কর্তৃক ইংরেজদেরকে প্রদত্ত সকল বাণিজ্যক সুযোগ-সুবিধা, যুদ্ধের ক্ষয়-ক্ষতি এবং কলিকাতায় ফোর্ট উইলিয়াম দুর্গ নির্মাণের অনুমতি প্রদান করেন। এতদ্সত্ত্বেও রবার্ট ক্লাইভ নবাবের প্রতি সত্তুষ্ট হতে পারলেন না। তিনি বাংলাদেশে ইংরেজ কোম্পানিকে স্বার্থ সংরক্ষণের জন্য সিরাজকে সিংহাসনচ্যুত করার জন্য কতিপয় স্বার্থানেষী বিশ্বাসঘাতকের সাথে গােপন ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
12 অক্টোবর 2021 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md. Redowan lslam
0 টি উত্তর
23 সেপ্টেম্বর 2021 "পড়াশোনা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Redowan
1 উত্তর
1 উত্তর
অ্যান্সগুরু বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি অনলাইন কমিউনিটি। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করতে পারবেন ৷ আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে অবদান রাখতে পারবেন ৷

1,381 টি প্রশ্ন

1,164 টি উত্তর

5 টি মন্তব্য

50,824 জন সদস্য

3 Online Users
1 Member 2 Guest
Online Members
Today Visits : 4095
Yesterday Visits : 9030
Total Visits : 337633
...